রবিবার, ১৪ জুলাই ২০২৪, ১২:৫৭ পূর্বাহ্ন

নিজেকে এতটা ফিট রেখেছেন কীভাবে, জানালেন দেবলীনা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, ৯ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪
  • ৫৭ Time View

ওজন কমিয়ে অনেকেরই আদর্শ হয়ে উঠেছেন ভারতীয় অভিনেত্রী দেবলীনা কুমার। অভিনয়ের কাজের শত ব্যস্ততা সামলে অনিয়মিত রুটিন মেনেও কোন জাদুবলে এতটা ফিট এই নায়িকা? এক সাক্ষাৎকারে এবার নিজেকে ফিট রাখতে তিনি কি কি মেনে চলেন সেই কথাগুলোই শেয়ার করেন অভিনেত্রী।

দেবলীনার একাল-সেকালের ছবি দেখলে কার্যত চেনাই দায়। তার স্বাস্থ্য ঈর্ষণীয়ও বটে। মেদ ঝরিয়ে নায়িকা এখনো ধরে রেখেছেন তার ফিটনেস। কিন্তু কোন মন্ত্রে এই পরিবর্তন নায়িকার? জিম নাকি ডায়েট? এটা জানার কৌতূহল অনেকের।

নিজের ফিটনেস রহস্য শেয়ার করতে গিয়ে দেবলীনা বলেন, আমরা ছোট থেকে বাড়ির যা যা খাবার খেয়ে বড় হয়েছি, ডায়েটে সেগুলো বাদ দেওয়াই এখন কঠিন। যেমন, ভাত। আমি কিন্তু ভাত ছাড়া থাকতে পারি না। আমি যদি ২ দিন ভাত না খাই, দেখেছি শরীরে বিভিন্ন সমস্যা শুরু হয়। আমার দিন শুরু হয় কফি দিয়ে। তবে দুধ-চিনি ছাড়া ব্ল্যাক কফি। তারপরে আমি জিমে ওয়ার্ক আউট করতে যাই। ফিটনেসে ডায়েটের চেয়েও আমার ভরসা জিম। বাদ দিই না কখনো।

অভিনেত্রী বলেন, রোজ ১ ঘণ্টা ওয়েট ট্রেনিং করি আমি। তারপরে, আধ ঘণ্টা কার্ডিও। কখনও আবার জগিং করে বা হেঁটেই জিমে চলে যাই। তাতে কার্ডিও সময়টা বাঁচে। এখন শহর জুড়ে বিভিন্ন জায়গায় ম্যারাথন হচ্ছে। তাতে অংশ নিই আমি। ফলে কার্ডিও আমার সেখানেই হয়ে যায়।

তিনি বলেন, দুপুরে খাবারে আমার ভরসা বাড়ির খাবার। সে শুটিং থাকুক বা অন্য ব্যস্ততা। খেয়াল করে দেখেছি এতে আমার শরীর ভাল থাকে।

তিনি আরও বলেন, আমি ভীষণ ভাতখোর। জিমে আমার বলাই রয়েছে, যত খাটতে বলবে খাটব। কিন্তু খাওয়া নিয়ে অত বিধিনিষেধ মানতে পারব না। আমরা তো ছোট থেকে ভাত, ঘি, আলু-সিদ্ধ খেয়েই বড় হয়েছি। এখন সেই খাবারগুলোকে ডায়েট থেকে বাদ দেওয়ায় বিশ্বাসী নই আমি।

দেবলীনা বলেন, প্রতিদিন দুপুরে ভাতের সঙ্গে পাঁঠার মাংস খাই। জানি এটা কেউ বললে বিশ্বাস করবে না। আসলে আমি মাছ খাই না, মুরগীর মাংস খুব একটা পছন্দ করি না। ফলে বেশিরভাগ দিন পাতে থাকে মাটন। সঙ্গে একটু সবজি। তবে খুব অল্প পরিমাণে খাই আমি।

জিমে ঘাম ঝরানো আর সামান্য খাবার… এর ওপরেই ভরসা করে পছন্দের খাবার খেয়ে ফেলেন দেবলীনা। সেই তালিকায় একদিকে যেমন রয়েছে পাঁঠার মাংস, অন্যদিকে রয়েছে মিষ্টিও। অভিনেত্রী বলেন, শীতকালটা এত বিয়েবাড়ির আমন্ত্রণ থাকে, আমার অধিকাংশ দিনই চিট-ডে হয়ে যায়।’

দেবলীনা বলেন, রাতের খাবারটা চেষ্টা করি খুব হালকা খেতে। কোনোদিন চিকেন বা কোনোদিন সবজি দিয়ে হেলদি নুডলস। এক খাবার আমি আবার রোজ খেতে পারি না। আর হ্যাঁ, চেষ্টা করি রাতের খাবারটা ৯টার মধ্যে খেয়ে নিতে।

অনেক ওজন কমিয়ে দেবলীনা অনেকেরই আদর্শ হয়ে উঠেছেন। কিন্তু কেন হঠাৎ তার মাথায় এই ওজন কমানোর ভাবনা এসেছিল? দেবলীনা বলেন, আমি চিরকালই নাচ করতাম। ওজন বেশি থাকলেও আমার নাচ করতে কখনো সমস্যা হত না। কেরিয়ারের অনেকটা পরে অভিনয়ে এসেছি তাই কখনো অভিনয়ের জন্য ওজন কামানোরও প্রয়োজনবোধ করিনি। তবে আমার মনে হয়েছিল, নিজেকে নিয়ে আরও একটু আত্মবিশ্বাসী হব। সবরকম পোশাক পরেই আত্মবিশ্বাসীভাবে চলাফেরা করতে পারব। তাই ওজন কমানোর সিদ্ধান্ত নিয়েছিলাম।

অভিনেত্রী বলেন, তবে সেই সময়ে এই ডায়েট আমি অবশ্য মেনে চলতাম না। আরও একটু কড়া হতে হয়েছিল। ভাত-রুটি কিছুই খেতাম না। রাতে শুধু ডালসিদ্ধ বা সবজি। সেই সময়ে অবশ্য বুঝতেও পারতাম না সঠিকভাবে যে শরীর কী চাইছে। এখন বুঝি, ডায়েটের থেকেও আমার জন্য উপযুক্ত হলো শরীরচর্চা। সেই রুটিনে ফাঁকি দিই না কোনোদিন। তবে আমি যোগব্যায়াম থেকে বেশি পছন্দ করি জিম। ওটাই আমার কমফোর্ট জোন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category